ওয়েব ডেস্ক : এক্সিট পোলগুলিকে ‘বোগাস’ বা কাল্পনিক বলে উল্লেখ করল কংগ্রেস। রবিবার কংগ্রেস বলেছে যে, নির্বাচনের কারচুপিকে ন্যায্যতা দেওয়ার লক্ষ্যে এই এক্সিট পোলগুলো সচেতন ভাবে করা হয়েছে। পাশাপাশি বিরোধী জোট বা ইন্ডিয়া জোটের কর্মীদের মনোবল হ্রাস করার লক্ষ্যে এগুলো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মনস্তাত্ত্বিক খেলার অংশ বলেও দাবি করেছে কংগ্রেস। অন্যদিকে, এক্সিট পোল প্রকাশেত পর নতুন সরকারের ১০০ দিনের কর্মসূচি নিয়ে বৈঠক-সহ বেশ কয়েকটি সভা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী মোদির তৎপরতাকে এদিন আক্রমণ করেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক জয়রাম রমেশ। তিনি বলেন, আমলাতন্ত্র ও প্রশাসনিক কাঠামোতে তিনি ফিরে আসছেন, এমন সংকেত দিতেই মোদির এইসব বৈঠক। এসবই মোদির মনস্তাত্ত্বিক খেলা—‘ফিরে আসছি, আবার প্রধানমন্ত্রী হব’, এমন একটি সংকেত আমলাতন্ত্র, দেশের প্রশাসনিক কাঠামোর কাছে পাঠাচ্ছেন তিনি। রমেশ বলেন, আমরা আশা করি যে, ভোটের সুষ্ঠু গণনা নিশ্চিত করার দায়িত্বে থাকা বেসামরিক কর্মচারিরা এই চাপের কৌশলে ভয় পাবেন না। নাম না করে মোদিকে নিশানায় রেখে এদিন রমেশ বলেন, গতকাল ১ জুন শনিবার সন্ধ্যায় যে এক্সিট পোলগুলি প্রকাশিত হয়েছে তা সম্পূর্ণভাবে কাল্পনিক বা ‘বোগাস’। এই এক্সিট পোলের পিছনে যে রয়েছে, সে এগুলোকে সাজিয়েছে। আগামী ৪ জুন তাঁর বিদায় নিশ্চিত এবং অনিবার্য। কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদকের দাবি, এগুলি সবই বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং বিদায়ী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মনস্তাত্ত্বিক খেলা। এক্সিট পোলগুলি যে ফলাফল নিয়ে এসেছে বাস্তবতার সঙ্গে তার কোনও সম্পর্ক নেই।

প্রসঙ্গত, শনিবার শেষ দফায় ভোট হয়ে যাওয়ার পর প্রকাশিত এক্সিট পোলগুলিতে বলা হয়েছে যে, প্রধানমন্ত্রী মোদি তৃতীয় বার সরকার গড়বেন।বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ লোকসভা নির্বাচনে বড় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে। ইন্ডিয়া টুডে-অ্যাক্সিস মাই ইন্ডিয়া ৫৪৩ সদস্যের লোকসভায় বিজেপি-নেতৃত্বাধীন জোটের জন্য ৩৬১-৪০১ আসন এবং বিরোধী ইন্ডিয়া জোটের জন্য ১৩১-১৬৬ আসনের পূর্বাভাস দিয়েছে। অন্যদিকে, এবিপি-সি ভোটার শাসক শিবিরের জন্য ৩৫৩-৩৮৩ আসনের পূর্বাভাস দিয়েছে। আর বিরোধী শিবিরের জন্য ১৫২-১৮২ আসন। এদিন এক্সিট পোলের তীব্র নিন্দা করে রমেশ বলেন, কারচুপির ন্যায্যতা দেওয়ার প্রচেষ্টায় এই এক্সিট পোল। ইভিএম-এর কারসাজিকে ন্যায্যতা দেওয়ারও চেষ্টা৷ কংগ্রেস কর্মীদের এবং ইন্ডিয়া জোটের কর্মীদের মনোবল হ্রাস করার জন্য একটি মনস্তাত্ত্বিক অপারেশনও এই এক্সিট পোল। তাঁরা এনিয়ে আতঙ্কিত হবেন না, ভয় পাবেন না উল্লেখ করে তিনি দাবি করেন যে, প্রকৃত ফলাফল এই এক্সিট পোলগুলো থেকে সম্পূর্ণ আলাদা হবে। কমপক্ষে ২৯৫ আসন পাবে ইন্ডিয়া জোট। এই এক্সিট পোলগুলি পেশাদার নয়, রাজনৈতিক বলেও দাবি করেন তিনি।

43 Views