আশিস কুমার ঘোষ, হাবরা

নাটকের শহর গোবরডাঙ্গার রঙ্গভূমির নাট্যচর্চার ১১ বছর অতিক্রম হয়েছে। এই উপলক্ষে রবিবার এক বর্ণময় অনুষ্ঠানের সাক্ষী থাকলো গোবরডাঙ্গার শিল্প অনুরাগী মানুষজন। এদিন সন্ধ্যায় রঙ্গভূমির রুফটপ থিয়েটার মঞ্চে প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্যে দিয়ে ওই অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এরপর উদ্বোধনী নৃত্য পরিবেশন করে গোবরডাঙা শিল্পায়নের অভিনেত্রী তানিশা রায়। তারপর স্বাগত ভাষণ দেন নাট্য একাডেমির সদস্য তথা গোবরডাঙা শিল্পায়নের কর্ণধার আশিস চট্টোপাধ্যায়। উপস্থিত ছিলেন থিয়েটার অ্যাসোসিয়েশন অফ গোবরডাঙ্গার (TAG) সদস্যরা, পবিত্র মুখোপাধ্যায়, গোবরডাঙ্গা রূপান্তরের সম্পাদক অভীক দাঁ, রবীন্দ্র নাট্য সংস্থার পরিচালক বিশ্বনাথ ভট্টাচার্য, উদীচির পরিচালক জয়দীপ বিশ্বাস, গোবরডাঙ্গা আত্মজর পরিচালক জয়ন্ত মুখার্জি, খাটুরা চিত্তপটের পরিচালক শুভাশিস রায়চৌধুরী, গোবরডাঙ্গা প্রেস ক্লাবের সম্পাদক স্বপন দাস, মলয় দাস, দীপঙ্কর দেবনাথ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে কবিতা পাঠ করে সৌম্য পাল, রবীন্দ্র নাট্যসংস্থার সদস্য আলোকবর্তিকা, গোবরডাঙা রূপান্তরের শিল্পী প্রতাপ সেন, জবা কুন্ডু, বিশাল দে, ধ্রুবাশীষ দেবনাথ, বিথীকা পাল ও ঈশান্ত হালদার।

বাংলার কবিদের উপর বক্তব্য রাখেন যমুনামতী পত্রিকার সম্পাদক সরোজ কান্তি চক্রবর্তী। সঙ্গীত পরিবেশন করে পারমিতা রায়ের পরিচালনায় গোবরডাঙার সুরসঙ্গীত সংস্থা, রঙ্গভূমির পক্ষ থেকে চমক, আশা, লতা, শ্রাবন্তী, তামান্না, জয়িতা এবং নিবেদিতা ভট্টাচার্য। অন্যদিকে, ভবেশ মজুমদারের পরিচালনায় গোবরডাঙা নৃত্যাল্পনা ব্যালট গ্রুপের সদস্যরা, গোবরডাঙা আকাঙ্ক্ষার সদস্যা অহনা দেবনাথ, সুরাইয়া এবং গোবরডাঙা রঙ্গভূমির সদস্যরা নৃত্য পরিবেশন করেন। পরিবেশ সচেতনতার উপর রঙ্গভূমি উপস্থাপনা করে মাইম। অংশগ্রহণে ছিল সত্যজিত, রাহুল, বিজয়, অরিত্র, দীপঙ্কর ও রোহিত।
প্রচন্ড গরমের মধ্যেও দর্শকের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। রুফটপ থিয়েটার কানায় কানায়, কেউ বসে কেউ দাঁড়িয়ে সমগ্র অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেন।
সমগ্র অনুষ্ঠানটিতে তবলায় সঙ্গ দেন – সৈকত ভট্টাচার্য এবং সঞ্চালনা করেন গোবরডাঙ্গার রঙ্গভূমির অভিনেত্রী সন্ধ্যা বারুই।

46 Views