ওয়েব ডেস্ক : মিজোরামে ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৯। কোলাসিব জেলার তলাং নদীতে এক ৩৪ বছর বয়সী মহিলার মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছে। জাতীয় সংবাদ মাধ্যম ‘দ্য হিন্দু’কে একথা জানিয়েছেন সরকারি আধিকারিকরা। গত মঙ্গলবার আইজল জেলার আইবাক গ্রামে ভূমিধসের কারণে ভ্যানলালরুয়ালী নামে এক মহিলা এবং তাঁর স্বামী নিখোঁজ ছিলেন। গত শুক্রবার অসমের সীমান্তবর্তী কোলাসিব জেলার হরতোকি গ্রামের নদীতে এক মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার হয় বলে তাঁরা জানান। নদীতে জাল ফেলে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করার পর কাউনপুইতে নিয়ে যাওয়া হলে পরিবারের লোকজন তাঁকে সনাক্ত করে।

অন্য ৫ জন নিখোঁজ ব্যক্তির সন্ধান করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। এদের মধ্যে চারজন মেলথুমের। এর মধ্যে একজন ছয় মাসের শিশুও রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে ভ্যানলালরুয়ালির স্বামী৷ মঙ্গলবার আইজল জেলায় একাধিক ভূমিধসে ২৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। নিহতদের মধ্যে ২১ জন স্থানীয় এবং আটজন ঝাড়খণ্ড ও অসমের অভিবাসী।
মুখ্যমন্ত্রী লালডুহোমা মৃতদের আত্মীয়স্বজনদের জন্য প্রত্যেককে ৪ লাখ করে অনুদান ঘোষণা করেছেন।
তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে বৃষ্টি এবং তারপর যে বিপর্যয় হয়েছে তার মোকাবেলায় সরকার ১৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে।

23 Views