ওয়েব ডেস্ক : প্রবল প্রাকৃতিক বিপর্যয়কে উপেক্ষা করে অনুষ্ঠিত হলো রূপাঞ্জয় ড্যান্স একাডেমির নবম বার্ষিক অনুষ্ঠান। রবিবার সন্ধ্যায় দর্শকে ঠাসা অশোকনগর শহীদ সদন প্রেক্ষাগৃহে রূপাঞ্জয়ের এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে প্রায় ২০০ জন ছাত্র-ছাত্রী। এদিন এই মঞ্চে বিভিন্ন শাস্ত্রীয় নৃত্যের পাশাপাশি পরিবেশিত হয় রবীন্দ্র নৃত্য এবং লোকনৃত্য। একের পর এক চোখ ধাঁধানো নৃত্য পরিবেশনা দর্শকদের মোহিত করে রাখে। এই অনুষ্ঠানে রূপাঞ্জয় ড্যান্স একাডেমীর পক্ষ থেকে স্বনামধন্য বহু নৃত্যশিল্পী, সংগীতশিল্পী, বাচিক শিল্পী-সহ অনেক গুণী ব্যক্তিত্বকে সংর্ধিত করা হয়। পাশাপাশি অশোকনগর প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদেরও সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

উত্তর ২৪ পরগনা জেলার হাবরা মনসাবাড়ি অঞ্চলের আন্তর্জাতিক গুরুমনি সন্মানপ্রাপ্ত নৃত্যগুরু অর্জুন সাহা পরিচালিত রূপাঞ্জয় ড্যান্স একাডেমির বহু শিক্ষার্থী ইতিমধ্যে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অনেক সাফল্য অর্জন করেছে। এদিন নৃত্যগুরু অর্জুন সাহা বলেন, একটা শিশুর শারীরিক এবং মানসিক বিকাশের জন্য পড়াশুনার পাশাপাশি নাচ শেখাটাও ভীষণ জরুরি। এই সুন্দর জগতের সঙ্গে থেকে জীবনে অনেক উন্নতি করা সম্ভব। তাঁর সকল শিক্ষার্থীদের আগামী দিনে উজ্জ্বল সাফল্য কামনা করেন তিনি।
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, অনেক প্রতিভাবান দুঃস্থ ছেলেমেয়েকে বিনা পারিশ্রমিকে আজকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন এবং আগামী দিনেও তিনি এই প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। এদিনের অনুষ্ঠানে রূপাঞ্জয়ের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ভীষণ খুশি সকল অভিভাবকেরা। এই প্রতিষ্ঠানের সার্বিক সাফল্য কামনা করেন তাঁরা।

96 Views