আবার এলো

অপর্ণা সেনগুপ্ত দে

কাশফুল আর শিউলিতলা
জানিয়ে মোদের দিলো,
বছর পরে মা শারদা
বাপের ঘরে এলো।
শিশিরভেজা সবুজ ঘাসের
উপর দিয়ে হেঁটে,
দেখতে যেতাম কলাবউ-স্নান
সেই সে পুকুরঘাটে।
যেইখানেতে মা যে আমার
খুলে চুলের বেণী,
সকাল বেলায় স্নানটি সারেন
শুধুই একাকিনী!
যেথায় আজো দোলনা বাঁধা
সেই সে কাঁঠাল গাছে,
মা-ঠাকুমার রঙ-বেরঙের
কাপড় তারে নাচে।
দাদুর মুখে উচ্চারিত
“গায়ত্রী” মন্ত্রধ্বনি,
আজও যেন শুনতে গো পাই
মোর কর্ণে দু’খানি!
পুজোর সময় ছুটির দিনে
বাবার হাতটি ধরে,
পৌঁছে যেতাম স্টেশন-বাজার
একটু একটু করে।
মনে পড়ে আজও আমার
পুরানো সেই দিন,
যেদিন মোরা ছিলাম সবাই
সত্যিকারের রঙিন।
একবছরের অপেক্ষাতে
আসলো খুশির পূজা,
সবাই মিলে চলো এবার
জমিয়ে করি মজা … ।

ওয়েব ডেস্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

‘ভারতমাতার শ্রেষ্ঠ সন্তান’ মোহন ভাগবতকে ‘জাতির পিতা’ উপাধি সম্বোধন কোনও বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়

Sat Sep 24 , 2022
সুকুমার মিত্র ‘হিন্দুত্ব’-এর প্রচারক বিনায়ক দামোদর সাভারকারের প্রিয় স্লোগান – ‘রাজনীতির হিন্দুত্বকরণ ও হিন্দুত্বের সামরিকীকরণ’ এই অবস্থান থেকে আরএসএস আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের অবস্থান পরিবর্তন করেছে এমন কোনও খবর নেই। তাহলে আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত-এর সঙ্গে মুসলিম সংগঠনের রুদ্ধদ্বার বৈঠক কেন? যদি দেশের সার্বিক স্বার্থে তা হয়ে থাকে তবে তা খোলামেলা আলোচনা […]

Breaking News