ওয়েব ডেস্ক : এক গর্ভবতী মহিলাকে ভর্তি না নেওয়ায় জয়পুরের একটি সরকারি হাসপাতালের ৩ জন আবাসিক চিকিৎসককে বরখাস্ত করল রাজস্থান সরকার। ওই চিকিৎসকদের অবহেলার কারণে গর্ভবতী মহিলা হাসপাতাল গেটের কাছে সন্তান প্রসব করতে বাধ্য হয়েছেন বলে খবর। বৃহস্পতিবার অভিযুক্ত চিকিৎসকদের বরখাস্ত করেছে রাজস্থান সরকার।

রাজস্থানের চিকিৎসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব শুভ্র সিং সংবাদ মাধ্যমকে জানান, বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এরপর ৩ জন চিকিৎসক কুসুম সাইনি, নেহা রাজাওয়াত এবং মনোজকে ‘গুরুতর অবহেলা এবং অসংবেদনশীলতা”র কারণে বরখাস্ত করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, ওই গর্ভবতী মহিলা হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় প্রচণ্ড প্রসব বেদনা অনুভব করেন এবং হাসপাতাল গেটের কাছে সন্তানের জন্ম দিতে বাধ্য হন। অবহেলার অভিযোগে হাসপাতালের সুপারিনটেনডেন্ট ডাঃ রাজেন্দ্র সিং তানওয়ারকেও কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করা হয়েছে বলে খবর।

অন্যদিকে, হরিয়ানার একটি সরকারি হাসপাতালের বাইরে সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এক প্রসূতি। হাসপাতালের প্রসূতি ওয়ার্ডে তাঁকে ভর্তি নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। এই ঘটনার পর হরিয়ানার স্বাস্থ্যমন্ত্রী অনিল ভিজ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। জানা গিয়েছে,
বছর ত্রিশের সুমন গর্ভাবস্থায় প্রসবপূর্ব চেক-আপের জন্য হাসপাতালে গিয়েছিলেন। তাঁর স্বামী শালু কুমার তাঁকে একটি মোটরবাইকে করে হাসপাতালে নিয়ে যান। তাঁরা অ্যাম্বুলেন্স পাননি। মহিলার স্বামীর দাবি, হাসপাতালের কর্মীদের কাছে তাঁর স্ত্রীকে প্রসূতি ওয়ার্ডে ভর্তি করার জন্য অনুরোধ করেছিলেন তিনি। কিন্তু তারা সেই অনুরোধে আমল দেয়নি। এরপর তাঁর স্ত্রী কোনও স্বাস্থ্যকর্মীর উপস্থিতি ছাড়াই হাসপাতাল প্রাঙ্গনে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেন।

1 Views